Up next

টাঙ্গাইলে বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনায় প্রধান আসামি রাজা গ্রেপ্তার

11 Views· 04 August 2022
Masud
Masud
1 Subscribers
1

⁣টাঙ্গাইলে বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনায় প্রধান আসামি রাজা গ্রেপ্তার


⁣টাঙ্গাইলের মধুপুরে বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনায় দায়ের করা মামলার
প্রধান আসামি রাজা মিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।
বৃহস্পতিবার ৪ আগস্ট ভোরে টাঙ্গাইল শহরের নতুন বাস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাকে
গ্রেপ্তার করা হয়। রাজা মিয়ার বাড়ি কালিহাতী উপজেলার বল্লা গ্রামে। তার
বাবার নাম হারুন অর রশিদ। তিনি টাঙ্গাইল শহরের নতুন বাসস্ট্যান্ড এলাকায়
ভাড়া বাসায় থাকতেন।
টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার এক প্রেস বিফিং এর
মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ঈগল পরিবহনের যে বাসটি ডাকাতের কবলে পড়ে,
সেই বাসের চালককে সরিয়ে দিয়ে রাজা চালকের সিট দখল করে। প্রাথমিক
জিজ্ঞাসাবাদে এ ঘটনায় কে কে জড়িত ছিলো রাজা আমাদের জানিয়েছে। তিনি জানান,
মধুপুরে বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনার পর থেকে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান শুরু
করে পুলিশ। ভোরে বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
বাকিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।
উল্লেখ্য, মঙ্গলবার রাতে কুষ্টিয়া থেকে ঈগল পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী
বাস ২৪ থেকে ২৫ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। গভীর রাতে
সিরাজগঞ্জ পৌঁছালে সেখান থেকে একদল ডাকাত যাত্রীবেসে ওই বাসে ওঠে। বাসটি
বঙ্গবন্ধু সেতু পার হওয়ার পর যাত্রীবেশে থাকা ওই তরুণ দল অস্ত্রের মুখে
যাত্রীদের বেঁধে ফেলে। কয়েক মিনিটের মধ্যে যাত্রীদের কাছ থেকে মোবাইল, নগদ
টাকা, স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নেয়। এরপর এক নারী যাত্রীকে ধর্ষণ করে তারা।
বাসটি বিভিন্ন স্থানে ঘুরিয়ে তিন ঘণ্টার মতো নিয়ন্ত্রণে রাখে। পরে পথ
পরিবর্তন করে টাঙ্গাইল ময়মনসিংহ সড়কের মধুপুর উপজেলার রক্তিপাড়া জামে
মসজিদের পাশে বালির স্তুপে বাসটি উল্টিয়ে ডাকাত দল পালিয়ে যায়।
এ ঘটনায় হেকমত আলী নামের এক বাস যাত্রী বাদী হয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে টাঙ্গাইলের মধুপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।
এদিকে ধর্ষনের শিকার ওই নারী টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
গ্রেফতারকৃত আসামীকে ৭দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Show more

 0 Comments sort   Sort By


Facebook Comments

Up next